শনিবার, ০৮ জুন ২০২৪ । ২৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাংলাদেশকে নিজের দেশ ভাবুন: প্রধানমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক »

নিউজটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশকে নিজের দেশ মনে করে এর উন্নয়নযাত্রার অংশীদার হতে বিদেশী বিনিয়োগকারী, ব্যবসায়ী প্রতিনিধিদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শনিবার সকালে ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন দি ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার্স অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি (এফবিসিসিআই) প্রতিষ্ঠার ৫০ বছর উদযাপন উপলক্ষ্যে আয়োজিত বাংলাদেশ বিজনেস সামিট উদ্বোধনকালে এ আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী। “এক্সিলারেটিং দ্য ট্রিলিয়ন ডলার জার্নি”-এই স্লোগান কে সামনে রেখে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে সামিটের আয়োজন করে এফবিসিসিআই।

আন্তর্জাতিক এ সম্মেলনের উদ্বোধনকালে প্রধানমন্ত্রী বলেন “আমরা বাংলাদেশকে দ্রুত বর্ধমান অর্থনীতির দেশে উন্নীত করতে সক্ষম হয়েছি। অর্থনীতির আকারের দিক থেকে বাংলাদেশ বিশ্বে ৩৫ তম। অর্থনীতির এ প্রবৃদ্ধি সম্ভব হয়েছে বেসরকারি খাতের অবদানের জন্যই। তাদের হাত ধরেই দেশের রপ্তানি আয় দাড়িয়েছে ৫২ বিলিয়ন ডলারে। বেসরকারি খাতকে গুরুত্ব না দিলে দেশের ব্যবসা বাণিজ্য, অর্থনীতির বিকাশ সম্ভব হত না।”

এলডিসি গ্র্যাজুয়েশন প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন,এলডিসি গ্র্যজুয়েশনের সাথে সাথে বাংলাদেশের জন্য সুযোগ যেমন তৈরি হবে,তেমনি নতুন নতুন চ্যালেঞ্জও তৈরি হবে। তবে হতাশ না হয়ে চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করার জন্য সকলকে প্রস্তুত থাকার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এজন্য বেসরকারি খাতের জন্য সরকারের পক্ষ তেকে সবরকম সহযোগিতা থাকবে বলে জানান তিনি।

এ আগে স্বাগত বক্তব্যে এফবিসিসিআই সভাপতি মোঃ জসিম উদ্দিন বলেন, “বাংলাদেশ বিজনেস সামিটে আপনাদের উপস্থিথিতে আমি উচ্ছ্বসিত। আমি বিশ্বাস করি যে এই ইভেন্টটি ব্যবসায়িক ধারণা আদান-প্রদান, পারস্পারিক সম্পর্ক গড়ে তোলা এবং বাংলাদেশে নতুন ব্যবসার সুযোগ সৃষ্টির জন্য একটি চমৎকার প্ল্যাটফর্ম হিসেবে কাজ করবে”।

বাংলাদেশ বিজনেস সামিটে বিভিন্ন ব্যবসায়ী নেতা, নীতিনির্ধারক, আন্তর্জাতিক সংগঠনের এর প্রথিনিধি, এবং ব্যবসায়িক গোষ্ঠীর প্রধানরা উপস্থিত থেকে বাংলাদেশ এবং বিশ্ব অর্থনীতি সম্পর্কে আলোচনা করেন এবং বাংলাদেশে বিদেশী বিনিয়োগ বৃদ্ধির করার উপর নিজেদের অভিমত তুলে ধরেন।

সামিটের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন, প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান, সেীদি আরবের বানিজ্যমন্ত্রী ড. মাজিদ বিন আবদুল্লাহ আল-কাসাবি, ভুটানের বানিজ্য, শিল্প ও কর্মসংস্থান বিষয়ক মন্ত্রী কার্মা দর্জিয়া, বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার ডেপুটি ডিরেক্টর জেনারেল অ্যাম্ব. জিয়াংচেন জ্যাং, এফবিসিসিআইর সিনিয়র সহসভাপতি মোস্তফা আজাদ চৌধুরী বাবু, সংসদ সদস্যগণ, বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূত, বহুজাতিক প্রতিষ্ঠনের প্রতিনিধিসহ দেশী বিদেশী ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ।

এদিন দুপুরে ব্যবসা বাণিজ্য সম্প্রসারণের লক্ষ্যে সৌদি আরব ও বাংলাদেশের মধ্যে ৩ টি সমঝোতা স্মারক সই হয়। এছাড়া চায়না কাউন্সিল ফর দ্যা প্রমোশন অব ইন্টারন্যাশনাল ট্রেড (সিসিপিইটি) এর সাথে এফবিসিসিআইর সমঝোতা স্মারক সই হয়।

বিকেলে আন্তর্জাতিক বড় কোম্পানি এবং বাংলাদেশে ব্যবসার পরিবেশ তৈরিতে অমদানীকারকদের সাথে “বিজনেস লিডার্স প্যানেল : বাংলাদেশ-দি বিগ পিকচার” শীর্ষক আলোচনায় অংশ নেন আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম সিএনএন এর এডিটর এটলার্জ ও বিখ্যাত উপস্থাপক রিচার্ড কোয়েস্ট। এছাড়া সিএনএন এর পক্ষ থেকে “সিএনএন ইনসাইটস্: দি গ্লোবাল মিডিয়া ল্যান্ডস্কেপ এন্ড ভিউ অন বাংলাদেশ” শীর্ষক সেশনের আয়োজন করা হয়।

এরপর “বাংলাদেশ গ্রোথ স্টোরি: হোয়াটস্ দ্যা ফিউচার রোডম্যাপ” শীর্ষক আলোচনায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন, বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি’র সাথে আলোচনায় অংশ নেন রিচার্ড কোয়েস্ট।

এফবিসিসিআই এই বিজনেস সামিটটি বাণিজ্য মন্ত্রণালয়, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এবং বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের সহযোগিতায় আয়োজন করেছে যা বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ও উন্নয়ন,নতুন বিনিয়োগ সৃষ্টি এবং দেশে ব্যবসার জন্য নতুন সুযোগ তৈরি করতে সহায়তা করবে বলে মনে করা হচ্ছে।

আপনার মন্তব্যটি লিখুন
শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »